ডিপ্রেশন কমাতে বাড়িতে রাখুন পাখি : গবেষণা

ডিপ্রেশন বা বিষণ্ণতা একটি ভয়াবহ ব্যাধী। বাংলাদেশে দিনে দিনে ডিপ্রেশনে ভোগা রোগীদের সংখ্যা বাড়ছে। আর এই রোগ থেকে বাঁচতে আবার অনেকেই আত্মহত্যার পথ বেঁছে নিচ্ছেন।ডিপ্রেশন হচ্ছে ইমোশনাল বা মনের ব্যাপার। একে মানসিক রোগও বলা যায়। এই রোগের সঙ্গে জড়িয়ে আছে চিন্তিত, অলসতা, নিস্তেজ এমনকি ঠিকমত কারও সঙ্গে কথা না বলা।

ডিপ্রেশন সাধারণত একাকীত্বের জন্যই হয়ে থাকে।ডিপ্রেশনের মূলত চিকিৎসা হচ্ছে নিজের চেষ্টা। নিজের চেষ্টা না থাকলে চিকিৎসকরা ডিপ্রেশন ভোগা রোগীদের ভালো করতে পারবে না।তবে ইংল্যান্ডের এক্সেটার বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক ডিপ্রেশন ভোগা রোগীর ওপর গবেষণা করেন পাখি নিয়ে। তারা গবেষণা করে দেখেছেন, মানুষের ডিপ্রেশন কমাতে প্রয়োজন হচ্ছে পাখির।

বিষয়টা একটু অন্য রকম হলেও এটি সত্য বলে প্রমাণিত হয়েছে।গবেষকদের মতে, যারা এই রোগে ভুগছে তারা বাহিরে পাখি দেখেই তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে উঠছেন। আর যারা বাহিরে আসেন না শুধু ঘরেই বসে একা কাটাচ্ছে, পাখি দেখেন না তারা অসুস্থই থেকে যাচ্ছেন। তাই তাদের দাবি, সময় পেলেই বাড়ির ছাদে গিয়ে পাখি দেখুন। এতে মনের আনন্দও যেমন লাগবে তেমনি মনের হতাশাও দূর হবে।

এমনকি গবেষকরা প্রস্তাব দিয়ে বলেছে, আপনারা বাড়িতেই পাখি পুষতে পারেন। তাহলে সবসময় তাদের সঙ্গে দেখা হচ্ছে, সময় কাটাতে পারছেন, তাদের সঙ্গে কথাও বলে মনের সব বিষণ্ণতা দূর করতে পারবেন। পাখিদের কিচিরমিচির ডাক আপনাকে প্রশান্তি ফিরিয়ে দিবে।-তথ্যসূত্র : ইন্ডিয়া ডটকম।