Home ›› Uncategorized ›› মাইক্রোসফট ওয়ার্ড( Microsoft Word )এ যারা কাজ শিখতে চান তারা Keyboard শটকার্ট গুলো দেখে নিন।

মাইক্রোসফট ওয়ার্ড( Microsoft Word )এ যারা কাজ শিখতে চান তারা Keyboard শটকার্ট গুলো দেখে নিন।

প্রিয় ভাই প্রথমে আমার সালাম নেবেন । আশা করি ভালো আছেন । কারণ MyBD24.Com এর সাথে থাকলে সবাই ভালো থাকে । আর আপনাদের দোয়ায় আমি ও ভালো আছি । তাই আজ নিয়ে এলাম আপনাদের জন্য একদম নতুন একটা টপিক। আর কথা বাড়াবো না কাজের কথায় আসি ।

আজ আমি আপনাদের জন্য নিয়ে আসলাম মাইক্রোসফট ওয়ার্ড( Microsoft Word )এ যারা কাজ শিখতে চান তাদের জন্য নিয়ে আসলাম Keyboard শটকার্ট।একনজরে এগুলো দেখে নিন।

মাইক্রোসফট ওয়ার্ডে কাজ করতে হলে কীবোর্ড শর্টকার্ট জানাটা খুব প্রয়োজন। প্রয়োজনের তাগিতে এবং আপনি যদি কীবোর্ড শর্টকার্ট জেনে থাকেন তাহলে অফিস-আদালতে দ্রুত কাজ শেষ করতে পারবেন। তাই বন্ধুগণ আসুন আমরা মাইক্রোসফট ওয়ার্ডের কীবোর্ড শর্টকার্টগুলো জেনে নেই।

মাইক্রোসফট ওয়ার্ড( Microsoft Word )এ যারা কাজ শিখতে চান তারা Keyboard শটকার্ট গুলো দেখে নিন।



Ctrl + A = সিলেক্ট অল। (All Select)
Ctrl + B = টেক্সট বোল্ড। (Bold)
Ctrl + C = কোন কিছু কপি করা। (Copy)
Ctrl + D = ফন্ট পরিবর্তনের ডায়ালগ বক্স প্রদর্শন করা।
Ctrl + E = সেন্টার এলাইনমেন্ট করা।
Ctrl + F = কোন শব্দ খোঁজা বা প্রতিস্থাপন করা। (Find World)
Ctrl + G = গো টু কমান্ড।
Ctrl + H = রিপ্লেস কমান্ড। (Replace)
Ctrl + I = টেক্সট ইটালিক। (Italic)
Ctrl + J = টেক্সট জাস্টিফাইড এলাইনমেন্ট করা। (Justify)
Ctrl + K = হাইপারলিংক তৈরী করা। (Hyperlink)
Ctrl + L = টেক্সট লেফট এলাইনমেন্ট করা। (Left Align)
Ctrl + M = ইনভেন্ট দেয়ার জন্য।
Ctrl + N = নতুন কোন ডকুমেন্ট খোলার জন্য। (New File)
Ctrl + O = পূর্বে তৈরী করা কোন ফাইল খোলার জন্য। (File Open)
Ctrl + P = ডকুমেন্ট প্রিন্ট। (Print)
Ctrl + Q = প্যারাগ্রাফের মাঝে স্পেসিং করার জন্য।
Ctrl + R = টেক্সটকে রাইট এলাইনমেন্ট করা। (Right Align)
Ctrl + S = ফাইল সেভ। (Save)
Ctrl + T = ইনডেন্ট পরিবর্তন করার জন্য।
Ctrl + U = টেক্সট আন্ডারলাইন।(Underline)
Ctrl + V = টেক্সট পেষ্ট করার জন্য।(Paste)
Ctrl + W = ফাইল বন্ধ করার জন্য। (Close File)
Ctrl + X = ডকুমেন্ট থেকে কিছু কাট করার জন্য। (Cut)
Ctrl + Y = রিপিট করার জন্য। (Redo)
Ctrl + Z = আন্ডু বা পূর্বের অবস্থায় ফিরিয়ে আনা। (Undo)
The use of function keys (ফাংশন Key এর ব্যাবহার)

F1: প্রায় সব প্রোগ্রামেরই হেল্প স্ক্রিন খুলে যায় এই Key টিপলে। অর্থাৎ, ধরুন আপনি কোনও একটি প্রোগ্রাম সম্পর্কে জানেন না। F1 টিপলেই সংশ্লিষ্ট প্রোগ্রাম সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য ও প্রশ্নোত্তর সমেত একটি স্ক্রিন খুলে যাবে আপনার ডেস্কটপে।
.
F2: কোনও একটি ফাইল বা ফোল্ডারের rename দিতে গেলে, অনেকেই মাউজের সাহায্য নেন। শর্টকাটটা হল F2। মাউজের প্রয়োজনই পড়বে না।
F3: কোনও একটি অ্যাপ্লিকেশনের (সেই মুহূর্তে যে অ্যাপ্লিকেশনটি ব্যবহার করছেন) সার্চ ফিচার খুলে যায় এই Key টিপলে।
F4: উইন্ডো বন্ধ করার জন্য F4 দারুণ শর্টকাট। Alt+F4 টিপলে অ্যাক্টিভ উইন্ডো বন্ধ হয়ে যাবে।
F5: কোনও একটি পেজ রিফ্রেশ বা রিলোড করতে গেলে খামোখা মাউজ নাড়াচাড়ায় সময় নষ্ট না করে F5 টিপে দিন।
F6: এই Key টিপলে ইন্টারনেট ব্রাউজারে কারসার সোজা চলে যায় অ্যাডড্রেস বার-এ।
F7: মাইক্রোসফট ওয়ার্ড বা কোনও অ্যাপ্লিকেশনে কিছু লেখার পর বানান ও ব্যাকরণগত কোনও ভুল থাকলে ধরিয়ে দেবে F7।
F8: উইন্ডোজের বুট মেনুকে ব্যবহার করতে পারবেন এই Key-এর মাধ্যমে।
F9: মাইক্রোসফট ওয়ার্ডে কোনও ডকুমেন্ট রিফ্রেশ করতে চাইলে ও মাইক্রোসফট আউটলুকে ই-মেল পাঠানো ও রিসিভের কাজ মিটে যায় এই শর্টকাট Key-এর সাহায্যে।
F10: কোনও একটি অ্যাপ্লিকেশনে মেনু বার আনতে গেলে বেশির ভাগ মানুষই রাইট ক্লিক করেন মাউজে। দরকারই পড়ে না যদি আপনি shift+F10 ব্যবহার করেন। রাইট ক্লিকেরই কাজ করে।
F11: ইন্টারনেট ব্রাউজারে ফুলস্ক্রিন মোডে ঢুকতে ও বেরতে কাজ করে F11 Key।
F12: মাইক্রোসফট ওয়ার্ডে ডকুমেন্ট Save as করতে গেলে মাউজের সাহায্য না নিয়ে এই Key-এ শর্টকাটে সেরে ফেলুন।

তাহলে ভাই ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন MyBD24.Com এর সাথে থাকুন।ধন্যবাদ ।

2 months ago (September 7, 2019) 53 Views
Report

About Author (40)

Administrator

Leave a Reply

You must be Logged in to post comment.

Related Posts

Contact Admin At Facebook